শনিবার, ২৫ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সেনাবাহিনী সরকারের কথা শুনছে না!



সেনাবাহিনী সরকারের কথা শুনছে না

গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে আর্মির নানা অ্যাকশন_পাল্টা যাচ্ছে পরিস্থিতি। সারাদেশে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করছে সেনাবাহিনী ও যৌথবাহিনী। গ্রেফতারের পর দেখা যায় সবাই আওয়ামীলীগ, যুবলীগ অথবা ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী।

বাংলাদেশের ১৮ কোটি মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকারকে বৃদ্ধাগুলি দেখিয়ে ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের ফল তাদের পক্ষে যাবে এমন প্রচার চালিয়ে কি তামাশাই না করছে শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসীরা।

নানা রকম ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে ভোটারদেকে ভোট দিতে নিরুৎসাহিত করতে আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসীরা কথিপয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় নরকীয় তাণ্ডব চালচ্ছে। তবে নির্বাচন উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন স্থানে সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাদের টহল ও তল্লাশি জোরদার করার পর থেকেই সশস্ত্র আওয়ামী সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের গ্রেপ্তার হতে শুরু করেছে।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর-

পাবনায় মন্ত্রী ছেলে তমাল সহ ছাত্রলীগ, যুবলীগের ১৭ জন আটক!(ইত্তেফাক)

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ন সম্পাদক অস্ত্রসহ আটক (DBC নিউজ)।

কেরানীগঞ্জে স্বেচ্চাসেবক লীগের নেতাসহ ৩ জন আটক (NTV নিউজ)।

ফেনীতে RAB এর হাতে অস্ত্রসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ১৮ জন আটক (সময় টিভি)।

ঢাকা পল্টনে ২২০ টি নকল সীল সহ সেনাবাহিনীর হাতে ছাত্রলীগ নেতা আটক (ইত্তেফাক)।

সোনাগাজীর নবাবপুর উইনিয়নের আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন RAB এর হাতে গ্রেফতার (যুগান্তর)।

রাজধানীর মোহাম্মদ পুরে যুবলীগের সহ সভাপতি নাসিম বাহার অস্ত্র সহ সেনাবাহিনীর হাতে আটক (যুগান্তর)।

নোয়াখালীর বিজবাগে পুলিশের হাতে অস্ত্রসহ ছাত্রলীগ সভাপতি আটক (যুগান্তর)।

নারায়ণগঞ্জে অভিযান চালিয়েছে শামীম উসমান এখনো পলাতক!